Oldest and Largest Bengali Association of Manitoba

নাটক : শত্রুদমন

Satrudaman is bichitra's forthcoming play. Director Sunu Das tells us how he conceptualized and planning for the direction.

কোন নাটক করার পরিকল্পনা আছে নাকি?
করার তো ইচ্ছে আছে। ভেবেওছিলাম একটা নাটকের কথা।
নাটক ভাল না মন্দ অর্থাৎ দর্শকের কাছে গ্রহণীয় হবে কিনা তা কি ভাবে বিচার করেন? কোন বিষয়বস্তুর ওপর প্রাধান্য দেন, আধুনিক সমসাময়িক কাহিনী না ঐতিহাসিক বা পৌরাণিক ঘটনা অবলম্বনে লেখা নাটক?
পেশাদার সম্প্রদায় যে কোন নাটক সহজেই মঞ্চস্থ করতে পারেন কারন তাদের অনেকরকম resource থাকে। ভাল-মন্দ যাইহোক নাট্যমোদীরা টিকিট কেটে দেখতে যান। সখের জন্যে যারা নাটক করেন তাদের কিন্তু অনেক কিছু ভাবতে হয়, অনেক দিকে লক্ষ্য রাখতে হয়। যেমন অভিনয় দক্ষতা, মঞ্চসজ্জা, দৃশ্যে আলো ও শব্দের যথাযত ব্যাবহার ইতাদি। একটা নাটককে আকর্ষণীয় করার জন্য এ সব কিছুরই সম্মিলিত প্রয়োগ দরকার।
আপনার প্রাধান্য কি? কিসের ওপর আপনি বেশী জোর দেন?
সবচেয়ে আগে দেখি whether it is ‘doable’ within our limited means. অর্থ।ৎ আমাদের যে লোকজন আছেন তাঁরা কত সময় দিতে পারবেন? একটা নাটক মঞ্চস্থ করতে অনেক প্রস্তুতি লাগে। যারা অভিনয় করেন চরিত্ররুপায়নে তাঁদের নিজেদের রীতিমত তৈরী করতে হয় য়া শ্রম ও সময় সাপেক্ষ। ফাঁকি দিয়ে হয় না, it’s a true “labour of love” বলতে পার।
যে নাটকটির কথা ভেবেছেন সে সম্পর্কে কিছু বলার জন্য কি অনুরোধ করতে পারি?
নাটকের নাম “শত্রুদমন”, চিত্তরঞ্জন ঘোষের লেখা। একটা শিক্ষিত মধ্যবিত্ত বাঙ্গালী পরিবারের মামুলী কাহিনী।
মেয়ে সুলতা বিস্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ছাত্রী। তার সহপাঠী অমল। অবশ্যই দুজনে পরস্পরকে ভালোবাসে। বাড়ীতে মা মেয়ের বিয়ের চিন্তায় স্বামীকে উত্তক্ত করেন। ধর্মভীরু বাবা ওসব কথায় বিশেষ কান দেন না, বলেন অত তাড়া কেন? ভগবানের ইচ্ছায় সময় হলেই মেয়ের বিয়ে হবে। অবিবাহিত কাকা খামখেয়ালী অধ্যাপক। তাঁর ইচ্ছা সুলতা আরও পড়াশোনা করে ডক্টরেট ডিগ্রি করুক, তারপর বিয়ের কথা ভাবা যাবে তার আগে না। সুলতার দাদা ডাক্তার, বোনকে অত্যন্ত ভালোবাসে, নিয়মিত যোগ-ব্যায়াম করার জন্য উৎসাহ দেয়। বৌদি সুলতাকে গানে পারদর্শী করতে চায় যাতে করে একজন ভাল পাত্রের সঙ্গে ওর তাড়াতারি বিয়ে হয়। আর অমল হচ্ছে পাকা সুবিধাবাদী। তার উদ্দেশ্য সুলতাকে বিয়ে করা। সে সুলতার বাড়ীর লোকেরা যখন যা বলেন তাতেই ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে সায় দেয় অর্থাৎ “জল উঁচু, জল উঁচু - জল নিচু, জল নিচু” ভাব আর কি! সুলতা বাধ্য মেয়ের মত সকলের উপদেশই প্রকাশ্যে মেনে নেয় কিন্তু আড়ালে উড়িয়ে দেয়। বিয়ের ব্যাপারে সে অমলের সঙ্গে একমত নয়। সে জন্য সুলতার কাছে এরা সকলেই শত্রু। শেষ পর্যন্ত অমলকেই বিয়ে করে সুলতা তার শত্রুদের হাত থেকে মুক্তি পেতে চায়। শত্রুদমন হোল এবং মধুরেন সমাপয়েৎ।

এই কাহিনীর মধ্যে নাটকীয়তা কোথায়? দৈনন্দিন জীবনের অতি সাধারন ঘটনা বলেই মনে হয় না কি?
সে কথা তো আগেই বলেছি যে নাটকটি মামুলী কাহিনীর ওপর লেখা। পাত্র –পাত্রীর সংলাপের মধ্যে পরিচালককে নাটকীয়তা খুঁজে বার করতে হয়। অভিনয়ের মাধ্যমেই নাটক জমে ওঠে, দর্শকের মনে ছাপ ফেলে। এই নাটকের কাহিনী সাধারন বলেই appealing, আমার কাছে এর nostalgic আকর্ষন আছে।
বিচিত্রায় যাঁরা অভিনয় করতে ইচ্ছুক তাঁদের কাছে আপনি কি আশা করেন?
অনেক কিছুই আশা করি। সবচেয়ে আগে চাই নিজের পার্ট মুখস্ত করা। সেজন্যে সবাইকে বার বার বলি যে remember your lines on stage, that’s the ‘Mantra’. তারপর অন্য কিছু।

×